সস্তায়.কম আপনার প্রিয় অনলাইন শপ

আইনি লড়াই চালাবেন শাকিব, ছাড় দেবেন না দিলরুবা

বিনোদন

নিউজ ডেস্ক ২ | ২৮ Jun ২০২০, রবিবার | সর্বশেষ আপডেট: ১১:০৮ অপরাহ্ন

অনুমতি ছাড়া গান ব্যবহার করায় চিত্রনায়ক শাকিব খানের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে অভিযোগ দায়ের করেছেন কণ্ঠশিল্পী দিলরুবা খান, গীতিকার আহমেদ কায়সার ও সুরকার আশরাফ উদাস। অভিযোগে বলা হয়েছে, অনুমতি না নিয়ে ‘পাগল মন’ গান রিমেক করে সিনেমায় ব্যবহার করেছেন শাকিব খান।

আজ রোববার (২৮ জুন) ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) সাইবার ইউনিটে ক্ষতিপূরণ ও আইনি ব্যবস্থার দাবি করে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের ২৩ ধারায় অভিযোগ দায়ের করা হয়।

দিলরুবা খানের আইনজীবী ও বাংলাদেশ কপিরাইট অফিসের আইনগত সহায়তা প্রদানকারী ব্যারিস্টার ওলোরা আফরিন এনটিভি অনলাইনকে এ খবর নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, ‘পাগল মন’ গানের কণ্ঠশিল্পী দিলরুবা খান, গীতিকার আহমেদ কায়সার ও সুরকার আশরাফ উদাস তিন জনই অভিযোগ করেছেন। ‘পাসওয়ার্ড’ সিনেমায় গানটি ব্যবহার করা হয়।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে আজ সন্ধ্যায় চিত্রনায়ক শাকিব খান এনটিভি অনলাইনকে বলেন, “বিষয়টি নিয়ে আমরা এর আগে সমঝোতা করার চেষ্টা করেছি। প্রয়োজনে দুই-এক লাখ টাকা দিতেও চেয়েছিলাম, তাঁরা রাজি হননি। এখন আমরা বিষয়টি আইনগতভাবেই দেখব। এর আগে যখন আমরা গানটি ব্যবহার করি, তখন দিলরুবা খানের সঙ্গে কথা বলেছি, তিনি আমাকে দোয়া করেছেন। বলেছেন, ‘আমি অনেক দিন হারিয়ে গিয়েছিলাম, এই গানটা আবারও হলে মানুষ আমাকে মনে করবে।’ উনি আমাকে দোয়া করেছিলেন। উনার মতো সিনিয়র মানুষ এত কিছু বলার পরও আমার বিরুদ্ধে অভিযোগ করা ঠিক হয়নি।”

এ প্রসঙ্গে জানতে চাওয়া হলে আজ রাত সাড়ে ৮টার দিকে জননন্দিত কণ্ঠশিল্পী দিলরুবা খান এনটিভি অনলাইনকে বলেন, ‘ওসব ভুয়া কথা। আমি কখনো হারিয়ে যাইনি। আমি বেঁচে আছি। আমার কাছ থেকে কোনো অনুমতি নেওয়া হয়নি এবং আমি ওই গান ব্যবহারের অনুমতি দেইনি। তা ছাড়া গানের গীতিকার-সুরকারও অনুমতি দেননি। তাঁদের অনুমতি ছাড়া গানটি ব্যবহার করা ঠিক হয়নি। আমিও আইনি লড়াই চালিয়ে যাব।’

দিলরুবা খান আরো বলেন, ‘এর মাধ্যমে কিছু মানুষ সতর্ক হবেন। যাতে কেউ অনুমতি ছাড়া আর কারো গান ব্যবহার করতে না পারেন।’

এর আগে ব্যারিস্টার ওলোরা আফরিন এনটিভি অনলাইনকে বলেন, ‘গত ফেব্রুয়ারিতে আমরা লিগ্যাল নোটিশ পাঠিয়েছিলাম শাকিব খান ও মোবাইল ফোন অপারেটর রবিকে। আমরা ১০ কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ দাবি করেছি। এ নিয়ে শাকিব খানের সঙ্গে কথাও হয়েছিল। তিনি সমঝোতা করতে চেয়েছিলেন। কিন্তু পরে টাকার অঙ্কের কারণে সমঝোতা হয়নি। আমরা শাকিব খানকে বলেছিলাম, আপনি একজন ব্র্যান্ড। কাগজপত্র ছাড়া কেন এ গান ব্যবহার করলেন? এ ব্যাপারে তাঁর কাছ থেকে কোনো সদুত্তর পাইনি। পরে করোনা-পরিস্থিতি এলো। কোর্ট বন্ধ ছিল। আমরা শাকিব খানের সঙ্গে তিন মাসের বেশি সমঝোতা করার চেষ্টা করেছি। কিন্তু সমঝোতা হয়নি। আজ আমরা অভিযোগ দায়ের করেছি।’

ব্যারিস্টার ওলোরা আফরিন আরো বলেন, ‘আমরা ক্ষতিপূরণ দাবি করে অভিযোগ করেছি। যদি ক্ষতিপূরণ না দেওয়া হয়, তাহলে মামলাটা এগোবে।’

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

  • *
  • এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আরও খবর