সস্তায়.কম আপনার প্রিয় অনলাইন শপ

আওয়ামী লীগের আয় বেড়েছে ৩৫ শতাংশ

জাতীয়

নিউজ ডেস্ক ২ | ২৯ Jul ২০২০, বুধবার | সর্বশেষ আপডেট: ০৮:৪১ অপরাহ্ন

আগের বছরের তুলনায় বিগত বছরে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের আয় প্রায় ৩৫ শতাংশ বেড়েছে। ২০১৯ সাল শেষে দলটির তহবিলের আকার দাঁড়িয়েছে ৫০ কোটি ৩৭ লাখ টাকা। এর মধ্যে নগদ আছে পাঁচ লাখ ১৩ হাজার টাকা। আর ব্যাংকে জমা আছে ৫০ কোটি ৩২ লাখ টাকা। এ ছাড়া ৪০ কোটি টাকার এফডিআর আছে।

অন্যদিকে, ২০১৮ সালে আওয়ামী লীগের তহবিলে সর্বমোট অর্থ ছিল ৩৭ কোটি ৫৬ লাখ টাকা। আর ২০১৯ সালে আয় হয়েছে সর্বমোট ২১ কোটি ২ লাখ টাকা।

আজ বুধবার রাজধানীর আগারগাঁও নির্বাচন কমিশন কার্যালয়ে আওয়ামী লীগের ‘আয়-ব্যয়ের হিসাব-২০১৯ বর্ষপঞ্জি এবং গণপ্রতিনিধিত্ব আদেশ ১৯৭২’ বিষয়ের ওপর লিখিত মতামত জমা দেয়া শেষে গণমাধ্যমকর্মীদের এসব তথ্য জানান আওয়ামী লীগ প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. আব্দুস সোবহান গোলাপ এবং দপ্তর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া।

যে সকল খাত থেকে আয় হয়েছে তার মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলো- নমিনেশন ফরম বিক্রি বাবদ ১২ কোটি ৩২ লাখ টাকা, সম্মেলন বাবদ প্রাপ্ত তিন কোটি দুই লাখ টাকা, ব্যাংক লভ্যাংশ বাবদ ২ কোটি ৩৩ লাখ টাকা এবং সংসদ সদস্যদের প্রদেয় চাঁদা বাবদ ১ কোটি ৭ লাখ টাকা।

এ ছাড়া কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্যদের মাসিক চাঁদা, জেলাভিত্তিক প্রাথমিক সদস্য সংগ্রহ চাঁদা ও প্রাথমিক সদস্য ফরম বিক্রি। কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের হল ভাড়া, পত্রিকা প্রকাশনা ও বিজ্ঞাপন (উত্তরণ) এবং পুস্তক বিক্রিসহ অন্যান্য খাত থেকে বাকি আয় হয়েছে।

বিপরীতে ২০১৯ সালে আওয়ামী লীগের সর্বমোট ব্যয় হয়েছে ৮ কোটি ২১ লাখ টাকা। ব্যয়ের উল্লেখযোগ্য খাত হলো- দলের জাতীয় সম্মেলন বাবদ ৩ কোটি ৪৩ লাখ টাকা। কর্মচারীদের বেতন, বোনাস, আপ্যায়ন ও অন্যান্য খরচ বাবদ ১ কোটি ১৩ লাখ টাকা, বিভিন্ন অনুষ্ঠান বাবদ ১ কোটি ১৮ লাখ টাকা এবং সভাপতির কার্যালয়ের ভাড়া বাবদ ৫৫ লাখ টাকা।

এ ছাড়া নির্বাচন পরিচালনা অফিস, অফিস রক্ষণাবেক্ষণ, ত্রাণ কার্যক্রম, বিভাগীয় জেলা জনসভা ও দলীয় অন্যান্য কার্যক্রম পরিচালনা, বিজ্ঞাপন ও পোস্টার প্রকাশনা বাবদ, উত্তরণ পত্রিকা প্রকাশনা ও সংশ্লিষ্ট বিষয়াদি, সাংগঠনিক খরচ, কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সার্ভিস চার্জসহ অন্যান্য খাতে বাকি অর্থ ব্যয় হয়েছে।

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

  • *
  • এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আরও খবর